হাতিয়ায় বিয়ের আশ্বাসে ধর্ষণ, যুবক গ্রেফতার

হাতিয়া নিউজ

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় এক নারীকে (২৫) বিয়ের আশ্বাসে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ইউছুফ ডুবাই (৪০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

ইউছুফ ডুবাই হাতিয়া উপজেলার হরনী ইউনিয়নের আনিস মিয়ার ছেলে।

শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী হাতিয়া থানায় নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। এরপর উপজেলার হরনী এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। শনিবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, ঘুমন্ত অবস্থায় একই গ্রামের ইউছুফ ডুবাই অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পরে সে আমাকে বিয়ে করে স্ত্রীর মর্যাদা দেয়ার আশ্বাস দেয়।

এই প্রতিশ্রুতিতে তিনি চারমাস স্বামী-স্ত্রীর মত প্রতিদিন শারীরিক সম্পর্ক করে। এক পর্যায়ে ওই নারী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

বিষয়টি ডুবাইকে জানালে, সে কৌশলে নোয়াখালীর জেলা শহরের একটি হাসপাতালে নিয়ে আমাকে অপারেশন করিয়ে গর্ভের সন্তানটি নষ্ট করে ফেলে। উক্ত ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকায় সামাজিকভাবে সালিস বৈঠক হয়।

বৈঠকে বিয়ের সিদ্ধান্ত হয়, তখন অভিযুক্ত ইউছুফ ডুবাই ভুল স্বীকার করে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। সামাজিকভাবে সিদ্ধান্ত মানার পর, সে ক্ষমতার দাপটে আমাকে আর বিয়ে করছে না।

হাতিয়া থানার ওসি মো.আবুল খায়ের জানান, ভুক্তভোগীর অভিযোগের ভিত্তিতে একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। মামলার পর তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে ইউসুফ ওরফে ডুবাইকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *